Home রংপুর মিঠাপুকুর মিঠাপুকুরে ছাত্রকে মারপিটের প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ

মিঠাপুকুরে ছাত্রকে মারপিটের প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ

96
0
SHARE
Social Media Sharing

নিজস্ব সংবাদদাতা, মিঠাপুকুর (রংপুর)
মিঠাপুকুরে বহিরাগত বখাটেরা ছাত্রকে বেধড়ক মারপিট করার প্রতিবাদে আজ ১১ ফেব্রুয়ারী রোববার ৫ শতাধীক শিক্ষার্থী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে। দেড় ঘন্টারও বেশি সময় ধরে অবরোধ চলার সময় যানবাহন আটক পড়ে। উপজেলার ফকিরহাট পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। মারপিটের শীকার ওই ছাত্র বর্তমানে হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে লড়ছে।
সরেজমিনে গিয়ে প্রত্যক্ষদর্শী ও শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, শনিবার ওই বিদ্যালয়ে এসেমব্লি শেষে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী নুরুজ্জামান মিয়া কলম কেনার জন্য পাশের বাজারে একটি দোকানে যায়। এসময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গিলাঝুঁকি গ্রামের সৈয়দ আলীর বখাটে ছেলে আনারুল ইসলাম ওই ছাত্রকে আটক করে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারপিট করতে থাকে। এসময় ছাত্রটির সহপাঠি বেলাল হোসেন এগিয়ে আসলে তাকেও মারপিট করে। মারপিটে শিক্ষার্থী নুরুজ্জামান গুরুতর আহত হয়। এ খবর পেয়ে শিক্ষার্থীরা ঘটনাস্থলে গেলে আনারুল পালিয়ে যায়। পরে, নুরুজ্জামানকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করায়। সহপাঠিদের ওপর হামলাকারী বহিরাগত বখাটের গ্রেফতার ও দৃস্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ এবং প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে সাধারন শিক্ষার্থীরা। এ উপলক্ষে গতকাল রোববার সকাল থেকেই দলে দলে বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে জড়ো হয় তারা। দুপুর ১২ টায় ওই বিদ্যালয়ের ৫ শতাধীক শিক্ষার্থী মিঠাপুকুর-ফুলবাড়ি আঞ্চলিক মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে অবরোধ সৃস্টি করে। এরফলে, মহাসড়কের দু’পাশে অসংখ্য যানবাহন আটকা পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। অপারাধীকে দ্রুত গ্রেফতারের আশ্বাস দিলে দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই শিক্ষার্থীর সহপাঠি ৮ম শ্রেণির ছাত্র বেলাল হোসেন বলে, শনিবার সকালে এসেমব্লি করার পর তাকে সাথে নিয়ে নুরুজ্জামান বিদ্যালয়ের পাশে ফকিরহাট বাজারে একটি দোকানে কলম কিনতে যায়। কলম নিয়ে আসার সময় কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই আনারুল ও তার স্ত্রী মৌলুদা নুরুজ্জামানকে টেনে হিঁচড়ে রাস্তার পাশে নিয়ে গিয়ে লাঠি দিয়ে বেদম মারপিট করতে থাকে। আমি এগিয়ে গেলে তারা আমাকেও মারপিট করে। অবরোধে অংশ নেওয়া ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থী তামিম, ফরিদ, মাসুদসহ অন্য শিক্ষার্থীরা জানায়, ছাত্রের ওপর হামলাকারীকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার না করলে আমরা আরও কঠোর কর্মসূচী দেব। এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আইয়ুব আলী বাদি হয়ে অভিযুক্ত ২ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। তিনি বলেন, বিদ্যালয়ের পরিবেশ নস্ট করতে বহিরাগতরা ছাত্রের উপর হামলা চালিয়েছে। আমি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সেই সাথে তিনি অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানান। মিঠাপুকুর থানার ওসি মোজাম্মেল হক বলেন, ছাত্রের ওপর হামলাকারীদের গ্রেফতারের চেস্টা চলছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্রদের রাস্তা অবরোধের খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়। এ ঘটনায় যাতে এলাকার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিঘিœত না হয় সেদিকে আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক আছি।


Social Media Sharing

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here