Home রংপুর কাউনিয়া কাউনিয়ায় নিখোঁজের ২৭ দিন পর লাশ উদ্ধার: সুদের টাকা চাওয়ায় বৈদ্যুতিক শক...

কাউনিয়ায় নিখোঁজের ২৭ দিন পর লাশ উদ্ধার: সুদের টাকা চাওয়ায় বৈদ্যুতিক শক দিয়ে বন্ধুকে হত্যা:স্বামী-স্ত্রী আটক

142
0
SHARE
Social Media Sharing

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

বন্ধুর কাছে সুদের টাকায় চাওয়ায় সিরাজুল ইসলাম (৪০) নামে এক দানদ ব্যবসায়ীকে ফোনে ডেকে নিয়ে বৈদ্যুতিক শক দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মর্মান্তিক এই ঘটনার ২৭ দিন পর আজ শনিবার (১৩ জানুয়ারী) দুপুরে অভিযুক্ত বন্ধুর বাসার রান্না ঘরে পুতে রাখা গর্ত থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এঘটনায় নিহতের বন্ধু ফরিদ ও তার স্ত্রী মিনি আক্তার মিষ্টিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, গত ১৭ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ১০টার দিকে রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছ পৌরসভার মালিয়াটারী কানাটারী গ্রামের মফেল উদ্দিলের ছেলে সিরাজুল ইসলামকে তার বন্ধু ফরিদ ফোন করে বাসার বাহিরে ডাকেন। ফোন পেয়ে হকবাজার মালিটারীতে বন্ধু ফরিদের সাথে দেখা করতে হয় সিরাজুল। এরপর আর ফিরে আসেননি। ওইদিন থেকে আত্মীয় স্বজনের বাড়ি, হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তার কোনো সন্ধান না পাওয়ায় গত ১৯ ডিসেম্বর সিরাজুলের ভাই সেরেকুল ইসলাম কাউনিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেন।

কাউনিয়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুলতান আলী জানান, নিহত যুবক পেশায় দাদন ব্যবসায়ী ছিলেন। ১২ জানুয়ারী শুক্রবার রাতে ফরিদকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করেন। পরে তার স্ত্রী মিনি আক্তার মিষ্টিকে (২৫) গ্রেফতারের পর তাদের দেয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী শনিবার নিখোঁজ সিরাজুলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মুলত দাদনের টাকার জের ধরে ফরিদ ও তার স্ত্রী তাকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে প্রথমে বৈদ্যুতিক শক দিয়ে হত্যার পর তার মরদেহ রান্না ঘরের মাটি খুঁড়ে পুঁতে রাখে।

কাউনিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন অর রশিদ দাবানলকে বলেন, এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


Social Media Sharing

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here