Home জাতীয় নির্বাচন ২০১৮ এবার সামাজিক মাধ্যমগুলোও নজরদারিতে রাখবে নির্বাচন কমিশন

এবার সামাজিক মাধ্যমগুলোও নজরদারিতে রাখবে নির্বাচন কমিশন

34
0
SHARE
Social Media Sharing

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদক

নির্বাচনের সময় ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ না করা হলেও সাইটগুলো নজরদারিতে রাখবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

এছাড়া অপপ্রচার ঠেকাতে সরকারের নেওয়া কনটেন্ট ফিল্টারিং ব্যবস্থার পাশাপাশি ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা ও প্রযুক্তি সহায়তা নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞরা।

গত এক দশক ধরে বিশ্বজুড়েই নির্বাচনে প্রচারণার গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হয়ে উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা সোশ্যাল মিডিয়া। তবে প্রচারের চেয়ে অপপ্রচার ছড়িয়ে শিরোনাম হচ্ছে সাইটগুলো।

যুক্তরাষ্ট্রের সবশেষ নির্বাচন এর বড় প্রমাণ। সে কারণে মার্কিন মুল্লুক থেকে ইউরোপ পর্যন্ত দেশে দেশে সমালোচিত হওয়ার পাশাপাশি জরিমানার মুখোমুখি হয়েছে ফেসবুক ও গুগলের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো।

দেশের তথ্য-প্রযুক্তির উন্নয়নে সঙ্গে বেড়েছে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীও। শুধু ফেসবুকেই এ সংখ্যা প্রায় ৩ কোটি। শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনে ভুয়া পোস্ট দিয়ে আন্দোলন উসকে দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটেছে। পরে ইন্টারনেট নিরাপদ করতে সেইফটি সল্যুশন প্রকল্প নেয় সরকার।

এখনো নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু না হলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সক্রিয় রাজনৈতিক দল, মনোনয়ন প্রত্যাশী ও নেতাকর্মীরা। অপপ্রচার চালিয়ে কেউ যাতে ভোটারদের বিভ্রান্ত করতে না পারে সে জন্য করণীয় ঠিক করতে সোমবার টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসির সঙ্গে আলোচনায় বসবে নির্বাচন কমিশন।

সামাজিক মাধ্যম বিশেষজ্ঞরা বলছেন, উন্নত দেশগুলোর মতো অপপ্রচার রোধে সহায়তা করতে ফেসবুককে বাধ্য করতে হবে।

এর পাশাপাশি নির্বাচন কমিশন ও সরকারের পাশাপাশি রাজনৈতিক দল ও নেতাকর্মীদের সোশ্যাল সাইট ব্যবহারে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞরা।


Social Media Sharing

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here